November 18, 2019, 7:27 am

কবি সুফিয়া কামালের জন্মদিন আজ

।। সাহিত্য প্রতিবেদক ।।

আজ ২০ জুন। নারী জাগরণের অগ্রদূত জননী সাহসিকা কবি সুফিয়া কামালের ১০৮তম জন্মদিন। ১৯১১ সালের এই দিনে বরিশালের শায়েস্তাবাদে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। মুক্তবুদ্ধির চর্চার পাশাপাশি সাম্প্রদায়িকতা ও মৌলবাদের বিপক্ষে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী এই মহীয়সী নারী।

কবির জন্মদিন উপলক্ষে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন  রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মা সাবেরা বেগমের কাছে বাংলা পড়তে শেখেন সুফিয়া কামাল। সৈয়দ নেহাল হোসেনের সঙ্গে মাত্র ১২ বছর বয়সে তার বিয়ে হয়। মূলত স্বামীর প্রেরণাতেই সাহিত্যপাঠে উৎসাহী হন সুফিয়া কামাল। ১৯২৬ সালে তার প্রথম কবিতা ‘বাসন্তী’ প্রকাশিত হয় তৎকালীন জনপ্রিয় সাময়িকী সওগাতে। ত্রিশের দশকে কলকাতায় থাকার সময় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, শরত্চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ও বেগম রোকেয়ার মতো দিকপালদের সান্নিধ্য পান তিনি। ১৯৩৭ সালে প্রকাশ পায় তার প্রথম গল্প সংকলন ‘কেয়ার কাঁটা’। ১৯৩৮-এ প্রকাশিত হয় প্রথম কবিতার বই ‘সাঁঝের মায়া’। যার মুখবন্ধ লিখে দেন কাজী নজরুল ইসলাম।

১৯৯৯ সালের ২০ নভেম্বর সুফিয়া কামাল মৃত্যুবরণ করেন। তাকে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়।

তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থগুলো হচ্ছে, সাঝের মায়া (১৯৩৮), মায়া কাজল (১৯৫১), মন ও জীবন (১৯৫৭), প্রশস্তি ও প্রার্থনা (১৯৫৮), উদাত্ত পৃথিবী (১৯৬৪), দিওয়ানা (১৯৬৬), অভিযাত্রিক (১৯৬৯), মৃত্তিকার ঘ্রাণ (১৯৭০), মোর জাদুদের সমাধি পরে (১৯৭২)। গল্পের বই ‘কেয়ার কাঁটা (১৯৩৭), ভ্রমণ বিষয়ক বই ‘সোভিয়েতের দিনগুলো’, স্মৃতিকথা-একাত্তরের দিনগুলো, আত্মকথা-‘একালে আমাদের কাল’সহ রয়েছে কয়েকটি শিশুতোষ বই এবং একটি অনূদিত গ্রন্থ।

সাহিত্য ও অন্যান্য ক্ষেত্রে অবদানের জন্য জীবিতকালে কবি সুফিয়া কামাল প্রায় ৫০টি পুরস্কার লাভ করেন।

রূপসা’র আরো সংবাদ