September 23, 2019, 7:00 am

খুলনা সিভিল সার্জন অফিসে দুদকের অভিযান

।। রুপসা ডেস্ক ।।

সোমবার দুপুরে নগরীর মির্জাপুর রোডস্থ সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। তাৎক্ষণিক অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণের প্রমাণ না মিললেও সনদ প্রদান রেজিস্ট্রার এবং সনদ প্রার্থীদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর না থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন দুদুক টিম।

দুদুক, খুলনার সূত্র জানান, স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বাবদ বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে খুলনার সিভিল সার্জন অফিসে অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণ করা হচ্ছে- মর্মে দুদুক কার্যালয়ে অভিযোগ করা হয়। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদক, খুলনার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মো. আবুল হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম দুপুরে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে অভিযান চালায়। এ সময় অফিসের উচ্চমান সহকারী এস এম মহসিন আলীকে সনদ প্রদান রেজিস্ট্রার দেখাতে বললে তিনি দেখাতে পারেননি। অভিযানকালে সিভিল সার্জন বাইরে থাকায় তাকে খবর দিয়ে আনা হয়।

সিভিল সার্জন ডা. এ এস এম আব্দুর রাজ্জাক বলেন, স্বাস্থ্য সনদ প্রদান বাবদ ১০০ টাকা করে নিতে ১৯৮৭ সালের এক আদেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদন রয়েছে। সেই বাবদ টাকা নেওয়া হয়। কিন্তু টাকার বিপরীতে রশিদ, হিসাব বা এ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার তার দপ্তরে সংরক্ষণ করা হয় না।

এ সময় দুদক টিম ‘স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ প্রদান বাবদ কোনো ফি নেওয়া হয় না’ মর্মে লিখিত ব্যানার টানিয়ে রাখা এবং এ সংক্রান্ত রেজিস্ট্রার সংরক্ষণের পরামর্শ দেন।

এর আগেও একই ধরণের অভিযোগে দুদক খুলনার সিভিল সার্জন অফিসে অভিযান চালায়।

রূপসা’র আরো সংবাদ